You are currently viewing খুব সহজেই লাচ্ছা সেমাই রান্নার রেসিপি
লাচ্চা সেমাই রান্নার রেসিপি

খুব সহজেই লাচ্ছা সেমাই রান্নার রেসিপি

লাচ্ছা সেমাই রান্না করাটা কিন্তু বেশ সহজ। শুধু দুধ এবং সেমাইয়ের পরিমাণ টা সঠিক জানলেই আপনি পারফেক্ট লাচ্ছা সেমাই রান্না করতে পারবেন। এর জন্য আপনার প্রয়োজন-

  • দুধ- ২ কেজি
  • লাচ্ছা সেমাই-২৫০ গ্রাম
  • চিনি- সাধ্যমত
  • সামান্য তেজপাতা, দারুচিনি ও এলাচ

প্রথমে একটি পাত্রে দুধ গরম করতে দিন। এরপর দুধের মাঝে চিনি এবং তেজপাতা, দারুচিনি এবং এলাচ যোগ করে নাড়তে থাকুন। দুধ ঘন  হয়ে এলে এতে এড করে নিন লাচ্ছা সেমাই। এবার  ২/৩ মিনিট পর সেমাই গুলোকে একটি পাত্রে ঢেলে পরিবেশন করে নিতে পারেন মজাদার লাচ্ছা সেমাই।

বাহারি পদের সেমাই রেসিপি

গরম দুধ এবং চিনি মিশিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যায় মজাদার লাচ্ছা সেমাই। তবে একটা পারফেক্ট লাচ্ছা সেমাই তৈরি করা কিন্তু এতটাও সহজ নাহ। একটা পারফেক্ট স্বাদের সেমাই তৈরি করতে হলে আপনাকে দুধ এবং সেমাই এর সঠিক পরিমাণ টা জানতে হবে। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেমাই দিয়ে তৈরি কিছু মজাদার ডেসার্ট রেসিপি সম্পর্কে।

শাহী দুধ সেমাই

শাহী দুধ সেমাই

উপকরণঃ

  • দুধ( ২ লিটার)।
  • চিনি- স্বাদ অনুযায়ী।
  • সেমাই-( ২০০ গ্রাম)
  • কিসমিস ও বাদাম-( পছন্দ অনুযায়ী)।
  • এলাচ, তেজপাতা  ও দারুচিনি-( ২/৩ টুকরো)

প্রস্তুত প্রণালীঃ

প্রথমে একটি পাত্রে দুধ গুলো ভালো ভাবে জ্বাল করে নিতে হবে। চুলার আচ মিডিয়াম হিটে রেখে দুধ গুলোকে জ্বাল দিয়ে অর্ধেক পরিমাণে নিতে হবে। দুধ জ্বাল করার সময়েই দুধের মাঝে এলাচ , দারুচিনি, তেজপাতা দিয়ে জ্বাল করবেন এতে বেশ ভালো একটা ফ্লেভার পাওয়া যাবে। 

এবার অন্য একটি পাত্রে, সামান্য ঘি নিয়ে সেমাই গুলোকে ভালো ভাবে ভেজে নিতে হবে। যদি সেমাইটি ঘিতে ভাজা লাচ্ছা সেমাই হয়ে থাকে তাহলে এক্সট্রা ভাবে ঘি দিয়ে ভাজার কোনও প্রয়োজন নেই। সেমাই ভাজা হয়ে এলে এটিকে সেই গরম করে রাখা দুধের মাঝে ছেড়ে দিন এবং আলতো ভাবে চামচের সাহায্য নাড়তে থাকুন প্রায় ২/৩ মিনিট। ব্যাস রেডি মজাদার শাহী দুধ সেমাই। সেমাই গুলোকে এবার একটি  বাটিতে ঢেলে নিন এবং সুন্দর ভাবে পরিবেশনের জন্য সেমাইয়ের  উপরে বাদাম এবং কিসমিস ছিটিয়ে নিন। বাটিতে সেমাই ঢালার পর প্রাথমিক ভাবে দুধের পরিমাণ বেশী মনে হলেও এটি ২/৩ ঘণ্টা রেস্টে রাখলেই দেখবেন সেমাই গুলো দুধ শুষে নিয়ে সুন্দর ভাবে ফুলে উঠেছে। এতেই কিন্তু সেমাইয়ের টেস্ট টা বেশী ভালো লাগে।সেই সাথে সেমাই টা ফ্রিজে রেখে পরিবেশন করলে জেনো টেস্টের মাত্রা আরও বৃদ্ধি পায়।

জর্দা সেমাই

জর্দা সেমাই

উপকরণঃ

  • সেমাই-২০০ গ্রাম।
  • চিনি-স্বাদ অনুযায়ী।
  • ঘি-২/৩ টেবিল চামচ।
  • পানি-এক থেকে দেড় কাপ।
  • কিসমিস এবং বাদাম- ইচ্ছে অনুযায়ী।
  • তেজপাতা, এলাচ এবং দারুচিনি- ৩/৪ টি।
  • জর্দা রং-সামান্য পরিমাণে

প্রস্তুত প্রণালীঃ

প্রথমে সেমাই গুলোকে ভেঙ্গে ছোট ছোট টুকরো করে নিতে হবে। এরপর একটি ফ্রাই-পেনে ঘি  মিশিয়ে সেমাই গুলোকে ভালো ভাবে ভেজে নিতে হবে। সেমাই ভাজার সময়ে এতে এড করে নিতে হবে কিসমিস, বাদাম, তেজপাতা, এলাচ এবং দারুচিনি। এবার সেমিয়ায়ের কালার টা যখন বাদামি হতে শুরু করবে তখন অন্য একটি বাটিতে এক কাপ পানি, পরিমানমতো চিনি এবং জর্দা কালার টা ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। এবার ভেজে রাখা সেমায়ের মাঝে এই জর্দা কালার ও চিনি মিশ্রিত পানি টি দিয়ে ভালো ভাবে নেড়ে নিতে হবে এবং ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রেখে জ্বাল দিতে হবে। সেমাই গুলো পরিপূর্ণ সিদ্ধ হয়ে এলে এটির উপরে আরও কিছু বাদাম ও সামান্য ঘি ছিটিয়ে পরিবেশন করতে পারেন মজাদার এই জর্দা সেমাই।

নবাবি জর্দা সেমাই

নবাবি জর্দা সেমাই

উপকরণঃ

  • সেমাই-২০০ গ্রাম
  • দুধ- ঘন জ্বাল করা দুধ ১ কেজি
  • চিনি-স্বাদ অনুযায়ী
  • বাদাম বাটা- ৩ টেবিল চামচ
  • দারুচিনি ও এলাচ -২/৩ টুকরো
  • বাদাম কুচি- পরিমাণ অনুযায়ী
  • গোলাপজল- ২ চা চামচ
  • জাফরান- ইচ্ছে অনুযায়ী।

প্রস্তুত প্রণালীঃ

প্রথমে গোলাপজলের সাথে জাফরান টা ভিজিয়ে রাখতে হবে। এর পর একটি পাত্রে জ্বাল করা দুধ, চিনি এবং বাদাম বাটা ভাল ভাবে মিক্সড করে জ্বাল দিয়ে নিতে হবে। অন্য একটি পাত্রে হালকা আচে বাদাম, কিসমিস, এলাচ ,দারুচিনি ও সেমাই গুলোকে সামান্য ঘি দিয়ে ভেজে নিতে হবে। সেমাই ভাজা শেষে সেমাইগুলোকে জ্বাল দিয়ে রাখা দুধের মাঝে রেখে জ্বাল দিয়ে নিতে হবে। ৩/৪ মিনিট জ্বাল দেওয়ার পর সেমাইগুলোর মাঝে গোলাপজল ও জাফরানে টা মিশিয়ে নিতে হবে ও সার্ভিসিং ডিসে রেখে ফ্রিজে রাখতে হবে। সেমাই ঠাণ্ডা হয়ে এলে উপরে বাদাম কুচি দিয়ে পরিবেশন করতে পারবেন।

সেমায়ের নাড়ু 

সেমাইয়ের নাড়ু

উপকরণঃ

  • লাচ্ছা সেমাই
  • চিনি (স্বাদ অনুযায়ী)
  • দুধ ( পরিমাণ মতো)
  • কনডেন্স মিল্ক( হাফ কাপ)
  • গুড়া দুধ ( ২ টেবিল চামচ)
  • এলাচ ও দারুচিনি( ৩/৪ টুকরো)
  • কাজু বাদাম, কাঠবাদাম ও কিসমিস( পরিমানমত)
  • খাটি ঘি( ২/৩ টেবিল চামচ)

প্রস্তুত প্রণালীঃ

প্রথমে একটি ফ্রাই-পেনে ঘি দিতে হবে। এরপর এতে দারুচিনি, এলাচ, বাদাম এবং সেমাই গুলোকে ভালোভাবে ভেজে নিতে হবে। ভাজার সময় চুলার আচ লো হিটে রাখবেন যাতে সেমাই কোনোভাবেই পুড়ে না যায়। এরপর সেমাইয়ের মাঝে কনডেনশ মিল্ক, চিনি, গুড়া দুধ ও পরিমাণ মতো দুধ এড করে নিবেন। দুধের পরিমাণ টা প্রথমে অল্প অল্প করে এড করে নিবেন। এরপর সেমাইয়ের মিশ্রণ আঠালো হয়ে এলে  এটি হাতের তালুতে ঘি মেখে লাড়ুর শেল করে নিলেই রেডি মজাদার সেমাইয়ের নাডু/ লাড্ডু।

কুনাফা

কুনাফা

উপকরণঃ

  • লাচ্ছা সেমাই- ২৫০ গ্রাম
  • কনডেন্স মিল্ক- ৩/৪ টেবিল চামচ।
  • কাজুবাদাম, কাঠবাদাম ও কিসমিস- পরিমাণ মতো।
  • ঘি- ৩ টেবিল চামচ।

প্রস্তুত প্রণালীঃ

একটি ফ্রাই-পেনে ঘি দিয়ে তাতে সেমাইগুলো ভেজে নিতে হবে। এরপর কনডেন্স মিল্ক ঢেলে সেমাইটি ভালো ভাবে মিক্সড করে নিতে হবে। আপনি যদি বেশি মিষ্টিপ্রেমি হয়ে থাকেন তাহলে সামান্য চিনি ও এড করে নিতে পারেন। এরপর সেমায়ে বাদাম-কুচি মিক্সড করে একটি সার্ভিসিং ডিসে ঢেলে ফ্রিজে রাখতে হবে ৪/৫ ঘণ্টার মতো।

শুকনো নারকেল সেমাই

উপকরণঃ

  • লাচ্ছা সেমাই- পরিমাণ মতো।
  • নারকেল কুড়ানো- এক কাপ।
  • চিনি- স্বাদ অনুযায়ী।
  • ঘি- ১ টেবিল চামচ।
  • এলাচ ,দারুচিনি ও তেজপাতা- ৩/৪ টুকরো।
  • কিসমিস ও মিক্সড বাদাম- পরিমাণ মতো।

প্রস্তুত প্রণালীঃ

প্রথমে একটি ফ্রাই-পেনে ঘি মিশিয়ে এতে তেজপাতা এলাচ, দারুচিনি, মিক্সড বাদাম ও সেমাই গুলোকে ভালো ভাবে ভেজে নিতে হবে। এরপর ভেজে রাখা সেময়ে স্বাদ অনুযায়ী চিনি এড করে নিতে হবে। সেমাই ভাজা হয়ে এলে এতে কুড়িয়ে রাখা নারকেল এড করে নিতে হবে। ব্যাস রেডি মজাদার শুকনো নারকেল সেমাই।

লাচ্ছা সেমাইয়ের বরফি

লাচ্ছা সেমাইয়ের বরফি

উপকরণঃ

  • লাচ্ছা সেমাই- ২০০ গ্রাম
  • খোয়া ক্ষীর-২৫ গ্রাম
  • কনডেন্স মিল্ক- ৪ টেবিল চামচ
  • কোড়ানো নারকেল- ১ কাপ
  • ঘি -২ টেবিল চামচ
  • লিকুইড দুধ- হাফ কেজি
  • চিনি- স্বাদ অনুযায়ী

প্রস্তুত প্রণালীঃ

প্রথমে একটি ফ্রাই-পেনে দুধ, চিনি এবং খোয়া ক্ষীর মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর অন্য একটি কড়ায়ে ঘি এর সাথে সেমাই গুলোকে ভেজে নিতে হবে। এরপর এতে এড করতে হবে কুড়ানো নারকেল ও কনডেন্স মিল্ক। সেমাই কিছুটা আঠালো হয়ে এলে এতে এড করে নিতে হবে রেডী করে রাখা সেই ক্ষীর। এবার  সব একসাথে ভালো ভাবে মিক্সড করে নিতে হবে। ৩/৪ মিনিট ভালোভাবে মেশানোর পর  একটি  থালায় সেমাই গুলোকে চেপে চেপে সমান করে রাখা হয়। সেমাইগুলো সেট হয়ে এলে  পছন্দ মতো শেপে কাটলেই রেডি লাচ্ছা সেমাইয়ের বরফি।

সেমাই এগ ডেভিল 

সেমাই এগ ডেভিল মূলত একটি ঝাল ঝাল আইটেম। স্বচ্ছর সেমাই মিষ্টি খাবার হিসেবেই পরিচিত। তবে সেমাই দীয়েও কিন্তু তৈরি করা যায় মজাদার ঝাল রেসিপি।

উপকরণঃ

  • লাচ্ছা সেমাই- এক কাপ।
  • সেদ্ধ ডিম- ২ টি।
  • সেদ্ধ আলু- ২ টি ( মাঝারি সাইজ)।
  • কর্নফ্লাওয়ার- ২ টেবিল চামচ।
  • কাঁচামরিচ- ইচ্ছে অনুযায়ী।
  • জিরে গুড়া ও গরম মশলা গুড়া- ১/২ চা চামচ।
  • লবণ- পরিমানমতো।
  • সাদা তেল -২ কাপ।
  • পানি- পরিমানতো।
  • বাদাম কুচি- ২ টেবিল চামচ।

প্রস্তুত প্রণালীঃ

সেদ্ধ আলু এর সাথে  বাদাম কুচি মিশিয়ে নিতে হবে ও মন্দা তৈরি করে নিতে হবে। এরপর সেদ্ধ ডিমের মাঝ বরাবর কেটে নিয়ে  ডিমগুলোকে আলুর সেই মন্ড দিয়ে ভালো ভাবে চেপে চেপে কোডিং করে নিবেন। এরপর অন্য একটি পাত্রে  কর্নফ্লাওয়ার, লবণ, মশলা গুড়া, কাঁচামরিচ,মিশিয়ে মাঝারি ঘনত্বের মিশ্রণ তৈরি করে নিতে হবে। এবার সেই মাঝ আলু দিয়ে কোড করে রাখা ডিমগুলোকে এই মিশ্রণের মাঝে ভালোভাবে মাখিয়ে নিতে হবে। অন্য একটি পাত্রে লাচ্ছা সেমাই কে ভেঙ্গে ছোট ছোট টুকরো করে নিতে হবে। এবার ডিম গুলোকে সেময়ের উপরে আরেকবার কোড করে নিতে হবে। সর্বশেষ এটিকে  গরম তেলে ভেজে নিতে হবে। চা এবং সসের সাথে খেতে এটি বেশ মজাদার।

লাচ্ছা সেমাইয়ের কেক 

লাচ্ছা সেমাইয়ের কেক

উপকরণঃ

  • লাচ্ছা সেমাই-২৫০ গ্রাম।
  • ডিম-২ টি।
  • আই-সিং সুবার- ১ কাপ।
  • বাদাম কুচি- ২/৩ টেবিল চামচ।
  • ঘি- ১ টেবিল চামচ।
  • তেল-আধা কাপ।

প্রস্তুত প্রণালীঃ

প্রথমে একটি পাত্রে ডিম। ঘি, চিনি এবং তেল ভালোভাবে বীট করে নিতে হবে। চাইলে ইলেকট্রিক বিটার ব্যবহার করতে পারেন। এরপর লাচ্ছা সেমাই গুলোকে ছোট ছোট আকারে ভেঙ্গে নিয়ে বিট করে রাখা মিশ্রণ এর সাথে ভালো ভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর ওভেনে ট্রেতে দিয়ে এর উপরে বাদাম ও কিসমিস ছিটিয়ে ২০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় এটি ১৫/২০ মিনিটের  বেক করে নিতে হবে। কেক টি রেডি হয়ে এলে এটিকে অন্য একটি পাত্রে  নামিয়ে ঠাণ্ডা করে ডেকোরেশন করে নিতে পারেন মজাদার সেমাইয়ের কেক ।

আশা করছি আজকের এই ব্লগ থেকে আপনারা লাচ্ছা সেমাই সম্পর্কে এবং লাচ্ছা সেমাই দিয়ে তৈরি করা নানা পদের রেসিপি সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

Leave a Reply